শুক্রবার, ০১ Jul ২০২২, ০১:৪৫ পূর্বাহ্ন

সাধারণ সম্পাদক পদ নিয়ে নির্বাচনী আপিল বোর্ডের সিদ্ধান্তে সন্তোষ জানিয়েছেন চিত্রনায়িকা নিপুণ আক্তার। অন্যদিকে ক্ষোভ জানিয়ে মামলার হু’মকি দিয়েছেন চিত্রনায়ক জায়েদ খান।

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির ৩৮ বছরের ইতিহাসে প্রথম নারী সেক্রেটারি হলেন নিপুণ আক্তার। এই সমিতির প্রথম নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয় ১৯৮৪ সালে। ওই বছরের ১১ মে সভাপতি পদে ক্ষমতা বুঝে নেন নায়করাজ রাজ্জাক। সেবার সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন খল অভিনেতা আহমেদ শরীফ। সেই থেকে এই পর্যন্ত পুরুষরাই এ সমিতির সভাপতি এবং সাধারণ সম্পাদক পদে জয়ী হয়ে আসছেন। এবার নিপুণ ভেঙে দিলেন সেই ধারা।

নিপুণ এই পদটি পেয়েছেন নানা নাটকীয়তার পর। গত ২৮ জানুয়ারি হয়ে যাওয়া শিল্পী সমিতির ২০২২-২৪ মেয়াদের নির্বাচনে নিপুণকে ১৩ ভোটে হারিয়ে জয়ী হয়েছিলেন জায়েদ খান। তবে তার বিরুদ্ধে নিপুণের করা অনিয়মের অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় জায়েদ খানের প্রার্থীতা বাতিল করা হয়েছে। ফলে নিপুণ বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়ী হয়েছেন।

তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় নিজের আবেগ ধরে রাখতে পারেননি নিপুণ। কাঁদতে কাঁদতে বলেন, “সত্যের জয় হয়েছে। আমার কাছে অনেক প্রমাণ ছিল। আমি অনেকভাবে গিয়েছি পীরজাদার (নির্বাচন কমিশনার) কাছে। তিনি আমাকে সহযোগিতা করেননি। সত্যের জয় হয়েছে।

আপনারা আমার জন্য দোয়া করবেন। আর কিছু বলার নেই।”

আরও পড়ুন