শুক্রবার, ০১ Jul ২০২২, ০৮:১০ অপরাহ্ন

শপথ গ্রহনের মধ্যে দিয়ে চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির চেয়ারে বসলেন সদ্য নির্বাচিত সভাপতি ইলিয়াস কাঞ্চন ও আপিল বোর্ডের রায়ে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত নিপুণ। যদিও এখনও নিজেকে নির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক বলে দাবি করছেন চিত্রনায়ক জায়েদ খান।

এ প্রসঙ্গে জায়েদ খান বলেন, ‘আমি এখনো সাধারণ সদস্যদের ভোটে নির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক। এফডিসিতে বহিরাগত ছেলেদের নিয়ে এসে গায়ের জোরে সাধারণ সম্পাদকের চেয়ারে বসেছেন নিপুণ, এ কারণে আমি আইনি প্রক্রিয়ায় এগোচ্ছি। ১৭৬ জন ভোটার আমাকে তাদের মূল্যবান ভোট দিয়ে নির্বাচিত করেছেন। এর সম্মান আমাকে রাখতেই হবে।’

ঘোষণার আগের রাতেই রাজধানীর বনানীর একটি রেস্তোরাঁয় নীল নকশা করা হয়েছে দাবি করে জায়েদ খান বলেন, ‘সোহানুর রহমান সোহান, মোহাম্মদ হোসেনকে নিয়ে নিপুণ শুক্রবার রাতে বনানীর একটি রেস্তোরাঁয় এই নীল নকশা তৈরি করেন। ওদের গোপন এই তথ্য আমার কাছে আছে। আইনের কাছে এই নীল নকশা হেরে যাবে।’

জায়েদ আরও বলেন, ‘অবৈধভাবে নির্বাচিত সাধারণ সম্পাদককে যেন শপথ না করানো হয় এজন্য আমি সোহানুর রহমান সোহান ও মোহাম্মদ হোসেনকে আজকেও (রোববার) আইনি নোটিশ পাঠিয়েছি। তারা কেউ আইন মানছেনই না। এখন আমার একটাই পথ, আইনি প্রক্রিয়ায় লড়াই চালিয়ে যাওয়া।’

এদিকে আজ রোববার (৬ ফেব্রুয়ারি) রাজধানীর বিএফডিসিতে বিজয়ী সদস্যদের শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠান হয়। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন নিপুণসহ তার প্যানেলের বিজয়ীরা। মিশা-জায়েদ প্যানেলের একজনই উপস্থিত ছিলেন সেখানে, তিনি মিশা সওদাগর। বিকেল সাড়ে ৫টায় বিদায়ী সভাপতি মিশা সওদাগর শপথ পাঠ করান নতুন সভাপতি ইলিয়াস কাঞ্চনকে।

পরে সভাপতি শপথ পাঠ করান সাধারণ সম্পাদকসহ অন্যান্যদের।

আরও পড়ুন