সোমবার, ০৪ Jul ২০২২, ০৩:১০ পূর্বাহ্ন

ভারতের কর্ণাটক রাজ্যে ছাত্রীদের হিজাব পরিধান নিয়ে বিতর্ক বেড়েই চলেছে। এনিয়ে বেঙ্গালুরু পুলিশ ঘোষণা দিয়েছে নতুন নির্দেশনা। আগামী দুই সপ্তাহের জন্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের কাছে সব ধরনের জমায়েত ও বিক্ষোভ নিষিদ্ধ করা হয়েছে। বুধবার (৯ ফেব্রুয়ারি) ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির এক অনলাইন প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

এর আগে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী বাসবরাজ বোম্মাই সবাইকে শান্তিশৃঙ্খলা বজায় রাখার আহ্বান জানিয়ে আগামী তিন দিন সেখানকার স্কুল ও কলেজ বন্ধ ঘোষণা দেন।

এদিকে বুধবার কর্ণাটকের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে হিজাব পরা নিয়ে হাইকোর্ট কী রায় দেয় সেদিকে তাকিয়ে ছিল দেশটির রাজ্য সরকার৷ তবে বিচারপতি সিঙ্গেল বেঞ্চ বিতর্কিত মামলাটি বৃহত্তর বেঞ্চে পাঠিয়ে দিয়েছেন। তিনি কোনো অন্তর্বর্তী নির্দেশও দিতে চাননি৷

জানিয়েছেন, অন্তর্বর্তী নির্দেশের ব্যাপারে বৃহত্তর বেঞ্চ যা সিদ্ধান্ত নেওয়ার নেবে৷

প্রতিবেদনে বলা হয়, কর্ণাটকের উদুপি জেলায় এক সরকারি কলেজ কর্তৃপক্ষ শিক্ষার্থীদের ইউনিফর্ম-সংক্রান্ত কিছু বিধিনিয়ম জারি করে। সেখানে বলা হয়, হিজাব পরে কোনো ছাত্রী ক্লাস করতে পারবে না। কারণ, তা বৈষম্য সৃষ্টিকারী। কর্তৃপক্ষের নির্দেশনা অনুযায়ী, ছাত্রীরা ‘স্কার্ফ’ পরতে পারবে। স্কার্ফের রং হতে হবে ওড়নার রঙের সঙ্গে মানানসই।

এদিকে, ভারতে শিক্ষার্থীর রোরকা-হিজাব নিষিদ্ধের প্রতিবাদে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ইসলামী ছাত্র আন্দোলনের বিক্ষোভ মিছিল করেছে।

আরও পড়ুন