বৃহস্পতিবার, ০৭ Jul ২০২২, ১২:৫৪ অপরাহ্ন

যতদিন পর্যন্ত হিজাব সংক্রান্ত মামলার নিষ্পত্তি না হচ্ছে, ততদিন স্কুল ও কলেজে হিজাবসহ যেকোনও ধরনের ধর্মীয় পোশাক পরা যাবে না। একই সঙ্গে রাজ্যটির স্কুল ও কলেজ খুলে দিতে বলা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১০ ফেব্রুয়ারি) এক মামলার শুনানিতে এ নির্দেশ দেন কর্ণাটকের হাইকোর্ট। এ মামলার পরবর্তী শুনানি হবে সোমবার (১৪ ফেব্রুয়ারি)।

হিজাব বিতর্কে উত্তপ্ত রাজ্যটিতে সাময়িকভাবে স্কুল ও কলেজ বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল কর্ণাটক সরকার।

এদিন আদালত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার পক্ষে মত দেন। আদালত বলেন, ফের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা হোক। আমরা চাই রাজ্যে শান্তি ফিরুক। বিষয়টির যতদিন না নিষ্পত্তি হচ্ছে, ততদিন যেন কোনওরকম অশান্তির ঘটনা না ঘটে। কেউ যেন ধর্মীয় উসকানি না দেয়।

একই সঙ্গে জানানো হয়, যতক্ষণ না বিষয়টি নিষ্পত্তি হচ্ছে ততদিন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে হিজাবসহ কোনও ধরনের ধর্মীয় পোশাক পরে আশা যাবে না।

উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার সকালে হিজাব সংক্রান্ত মামলাটিকে দ্রুত সুপ্রিম কোর্টে শুনানির আবেদন উঠেছিল। যদিও সেই আবেদন খারিজ করে দিয়েছেন সর্বোচ্চ আদালত।

প্রসঙ্গত, মঙ্গলবার (৮ ফেব্রুয়ারি) উগ্র হিন্দুত্ববাদী একদল তরুণের ‘জয় শ্রীরাম’ ধ্বনির পাল্টা ‘আল্লাহু আকবার’ স্লোগান তুলে খবরের শিরোনাম হয়েছেন কর্ণাটকের এক মুসলিম তরুণী। মুসকান খান নামের ওই তরুণীর সাহসিকতার জন্য গতকাল জমিয়তে উলামায়ে হিন্দ ৫ লাখ টাকা পুরস্কার ঘোষণা করেছে।

সূত্র: সংবাদ প্রতিদিন

আরও পড়ুন