সোমবার, ২৮ নভেম্বর ২০২২, ১২:৩৮ পূর্বাহ্ন

নওগাঁর মান্দায় টারকি মুরগি কেনার টাকা নিয়ে দ্বন্দ্বের জের ধরে ক্রেতার কান কেটে নেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। গতকাল মঙ্গলবার বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে উপজেলার মান্দা ইউনিয়নের বাদলঘাটা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

ঘটনায় আহত আলিমুদ্দীন (৩৯) মান্দা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন। তিনি বাদলঘাটা মোল্লাপাড়া গ্রামের ছহির উদ্দিনের ছেলে। এ ঘটনায় মান্দা থানায় মঙ্গলবার রাতেই ছয়জনের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে।

মামলা সূত্রে জানা যায়, আহত আলিমুদ্দীন প্রায় দুই মাস আগে বাদলঘাটা গ্রামের সবুজ হোসেন মোল্লার দোকান থেকে একটি টারকি মুরগি বাকিতে কেনেন। এরপর পাওনা টাকা দোকান মালিককে পরিশোধও করেন তিনি। কিন্তু পরবর্তীতে আবারও টাকা দাবি করলে ক্রেতা আলিমুদ্দীনের সঙ্গে দোকানদার সবুজের বাগবিতণ্ডা ও বিরোধের সৃষ্টি হয়।

এর জের ধরে গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে স্থানীয় বাজারে যাওয়ার পথে আলিমুদ্দীনের পথরোধ করে দোকানদার সবুজ হোসেন। এক পর্যায়ে পলাশ, ভুট্টু, হানিফ, সাইফুল ও নওসাদ দোকানদার সবুজের সঙ্গে যোগ দিয়ে আলিমুদ্দীনকে মারধর করে। এ সময় সবুজ হোসেন কামড় দিয়ে আলিমুদ্দীনের ডান কান কেটে নেন। পরে স্থানীয়রা আলিমুদ্দীনকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেন।

এ ঘটনায় আলিমুদ্দীনের বাবা ছহির উদ্দিন বাদী হয়ে সবুজ হোসেনসহ ছয়জনের বিরুদ্ধে মামলা করেন। মান্দা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহিনুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, বিষয়টি তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আরও পড়ুন