রবিবার, ০৩ Jul ২০২২, ০২:৩২ অপরাহ্ন

শীতকাল মানেই কাশ্মিরে বরফের স্বর্গ। সাদার শুভ্রতায় ছেয়ে যায় গোটা উপত্যকা। বরফে আচ্ছাদিত অঞ্চলটি দেখতে ভিড় করেন লাখো পর্যটক। তবে এবার বরফের হোটেল বানিয়ে সবাইকে তাক লাগিয়ে দিয়েছেন এক কাশ্মিরি। বিশ্বের সবথেকে বড় ইগলু ক্যাফে তৈরি করেছেন কাশ্মিরি যুবক। ক্যাফেটির নির্মাতা ওয়াসিম শাহ এখন অপেক্ষা করছেন শুধু গিনেস বুকে নাম লেখানোর।

এলওয়াই’র প্রতিবেদনে বলা হয়, বিশ্বের বৃহৎ এই ইগলু ক্যাফেটি জম্মু-কাশ্মিরের রাজধানী শ্রীনগর থেকে ৫২ কিলোমিটার দূরে গুলমারগ জেলায় অবস্থিত। এক পর্যটক বলেন, আমি প্রথমবারের মতো কাশ্মিরে এসেছি। আমি শুনেছি কাশ্মিরকে পৃথিবীর স্বর্গ বলা হয়। কিন্তু আমি এখানে এসে আসলেই দেখছি কাশ্মির পৃথিবীর স্বর্গ। তিনি আরও বলেন, ইগলু ক্যাফেটি এতো বেশিই সুন্দর যা আমি ভাষায় প্রকাশ করতে পারব না। কাশ্মিরের সৌন্দর্য উপভোগ করতে হলে এখানে অবশ্যই আসতে হবে। নেট দুনিয়ায় যেসব ভিডিও দেখা যায় সেটি দেখে আসল সৌন্দর্য কিছুই বোঝা যায় না।

জানা যায়, বরফের এই হোটেলটি তৈরি করতে ৬৪ জন শ্রমিকের কাজ করতে হয়েছে টানা ২৫ দিন। ৩৭ ফুট উঁচু ও ৪৪ ফুট ব্যাসের এই হোটেলটিকে পৃথিবীর সবথেকে বড় ইগলু ক্যাফে বলে দাবি করেন নির্মাতা ওয়াসিম শাহ। তিনি বলেন, আমরা শুধু একটি স্থাপনা তৈরি করতে চায়নি। আমরা চেয়েছি এটা যেন অনন্য একটি নিদর্শন হয়। আমাদের এই ক্যাফের একপাশে ৪০জন পর্যটক বসে আড্ডা দিতে পারে। অন্য পাশে বরফের কারুকাজ। আছে কাশ্মিরের ঐতিহ্যবাহী প্রদর্শনী।

৫ ফুট পুরু দেয়ালের হোটেলটির ভেতরে রয়েছে দুইটি অংশ। একপাশে সাজানো আছে বরফের তৈরি ১০টি টেবিল। এবং অন্য পাশে রয়েছে বরফের তৈরি বিভিন্ন শিল্পকর্ম। এর ভেতরে ঘুমানোরও ব্যবস্থা আছে।

পর্যটকদের পাশাপাশি বরফের এই ক্যাফেটি স্থানীয়দের বেড়ানোর জন্য দারুণ এক জায়গা হয়েছে। এটি দেখতে ভিড় করছেন বাইরের পর্যটকদের পাশাপাশি স্থানীয়রাও।

গিনেস রেকর্ডের তথ্য মতে পৃথিবীর সবথেকে বড় বরফের হোটেল সুইজারল্যান্ডে। যার ব্যাস ৪২ ফুট ও উচ্চতা ৩৩ ফুট। সেই হিসেবে কাশ্মিরের এই ক্যাফেটির স্বীকৃতি পাওয়া সময়ের অপেক্ষা মাত্র।

আরও পড়ুন