বৃহস্পতিবার, ৩০ Jun ২০২২, ০৯:৪৬ অপরাহ্ন

ভারতের দক্ষিণাঞ্চলীয় রাজ্য কর্ণাটকে মুসলিম ছাত্রীদের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে হিজাব পরে যাওয়া নিয়ে তুমুল বিতর্ক চলছে। হিজাব বিতর্ক এখন পুরো ভারতে ছড়িয়ে পড়েছে। এমনকি বিষয়টি নিয়ে সরব যুক্তরাষ্ট্রও। রাজনৈতিক নেতা থেকে শুরু করে বলিউড তারকারা হিজাব বিতর্ক নিয়ে মুখ খুলছেন।

এবার হিজাব বিতর্ক নিয়ে মুখ খুলেছেন কর্ণাটকের কংগ্রেস নেতা এবং এমএলএ জমির আহমেদ। তিনি বলেছেন, হিজাব না পরার কারণেই ভারতের ধর্ষণের হার বেশি। রোববার (১৩ ফেব্রুয়ারি) এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে ভারতীয় বার্তাসংস্থা এএনআই এবং সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি।

জমির আহমেদ বলেন, ইসলামে হিজাব অর্থ হচ্ছে পর্দা। মেয়েরা বড় হলে অন্য মানুষের কাছ থেকে তাদের সৌন্দর্য লুকাতে পর্দা করতে হয়। আজ আপনারা দেখবেন যে, আমাদের দেশে (ভারতে) ধর্ষণের হার সবচেয়ে বেশি। এর পেছনের কারণ কী হতে পারে? এর কারণ হচ্ছে- কিছু নারী হিজাব পরেন না।

তিনি আরও বলেন, হিজাব পরা বাধ্যতামূলক না। যারা নিজেদের রক্ষা করতে চায় এবং যারা নিজেদের সৌন্দর্য সবার কাছে প্রকাশ করতে চান না তারাই কেবল হিজাব পরেন। হিজাব পরার রীতি ভারতে বহু বছর ধরে প্রচলিত রয়েছে।

এদিকে হিজাব নিয়ে মামলার নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত স্কুল-কলেজে হিজাব পরে প্রবেশ করতে পারবেন না বলে নির্দেশ দিয়েছেন কর্ণাটক হাইকোর্ট। সোমবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) হাইকোর্টে এই শুনানি ফের শুরু হওয়ার কথা রয়েছে

আরও পড়ুন