বুধবার, ২৯ Jun ২০২২, ০৭:২৬ অপরাহ্ন

চট্টগ্রামের আনোয়ারা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে জন্মের ৫ ঘণ্টা পরে নবজাতক কন্যা সন্তানকে রেখে পালিয়েছেন মা ও স্বজনেরা। সোমবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) ভোরে এ ঘটনা ঘটে। সেই সংবাদ পেয়ে ফেলে রাখা নবজাতকটিকে কোলে তুলে নেন আনোয়ারা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা। জানা গেছে. সেই নবজাতকের মা ভুয়া নাম ঠিকানা দিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন।

এদিকে সেই ফুটফুটে নবজাতকের দায়িত্ব নিতে আগ্রহ প্রকাশ করেছেন ৫০ জনের বেশি মানুষ। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন আনোয়ারা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ জুবায়ের আহমেদ। তিনি বলেন, আনোয়ারা উপজেলা হাসপাতালের চিকিৎসক ও নার্সরা ওই নবজাতককে দেখাশোনা করছেন। তার যা যা প্রয়োজন সব কিছুর ব্যবস্থা আমরা করছি। বাচ্চাটি সুস্থ আছে। এখনো পর্যন্ত বাচ্চাটিকে ফেলে যাওয়া নারীদের কারো খোঁজ পাওয়া যায়নি।

চট্টগ্রামের আনোয়ারা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) শেখ জুবায়ের আহমেদ ঢাকা পোস্টকে বলেন, বিলকিস আক্তার নাম ও বাঁশখালীর সাদনপুর ঠিকানা দিয়ে একজন নারী রোববার রাতে চট্টগ্রাম আনোয়ারা উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি হন। সেখানে তিনি একটি কন্যা সন্তানের জন্ম দেন। কিন্তু জন্ম দেওয়ার কয়েক ঘণ্টা পর শিশুটির মা ও সঙ্গে আসা দুজন নারী নবজাতককে একা ফেলে রেখে চলে যান। এখন পর্যন্ত তার মা ও অন্যান্য আত্মীয়-স্বজনের কোনো সন্ধান পাওয়া যায়নি।

তিনি বলেন, বাচ্চাটি বর্তমানে আমাদের হেফাজতে আছে। আনোয়ারা উপজেলা হাসপাতালের চিকিৎসক ও নার্সরা তার দেখাশোনা করছেন। নবজাতকটির যা যা প্রয়োজন সব কিছুর ব্যবস্থা করা হচ্ছে। বাচ্চাটি সুস্থ আছে। েউপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আরও বলেন, যেহেতু বাচ্চাটিকে তারা ফেলে রেখে গেছেন তাই তাদের খোঁজ না পাওয়ার সম্ভাবনা বেশি। আর যে ঠিকানা দিয়ে গেছে তা ভুল বলে মনে করছি। এখন কোনো উপযুক্ত পরিবার পেলে আইনগত ব্যবস্থার মাধ্যমে এই বাচ্চাটিকে তাদেরকে দেওয়া হবে। আর না হয় সরকারি ছোট মনি নিবাসীকে এই নবজাতককে দেওয়া হবে। এছাড়া কন্যা শিশুটির পরিবারের কোনো সদস্যের কেউ সন্ধান দিতে পারলে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সঙ্গে যোগাযোগ করতে বলা হয়েছে।

আরও পড়ুন