বৃহস্পতিবার, ৩০ Jun ২০২২, ০৯:৫২ অপরাহ্ন

গাইবান্ধার পলাশবাড়ীর ছোট শিমুলতলা গ্রামে না জানিয়ে বিয়ে করায় এক যুবকের গোপনাঙ্গ কেটে দিয়েছেন ভোলা নামে তৃতীয় লিঙ্গের এক বন্ধু।

মঙ্গলবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) সকালে আহত অবস্থায় তাকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এর আগে সোমবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) রাতে ওই গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

আহত ব্যক্তি উপজেলার আমলাগাছি হাট এলাকার অনন্ত দাশের ছেলে পদ্ম দাশ (৩৫)।

জানা গেছে, পদ্ম দাশের সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরে বন্ধুত্বের সম্পর্ক ছিল তৃতীয় লিঙ্গের ভোলার। কিছুদিন আগে পদ্ম তার বন্ধু ভোলাকে না জানিয়ে বিয়ে করেন। এতে ভোলা মনে মনে ক্ষুব্ধ হন। পরে সোমবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) রাতে ভোলা তার নানাবাড়ি ছোট শিমুলতলা গ্রামে পদ্মকে দাওয়াত করে। পরে পরিকল্পিতভাবে খাবারের সঙ্গে ঘুমের ওষুধ মিশিয়ে তাকে আপ্যায়ন করা হয়। কিছুক্ষণ পর পদ্ম অচেতন হয়ে পড়লে ব্লেড দিয়ে তার গোপনাঙ্গ কেটে দেন অভিযুক্ত ভোলা। এ সময় ভুক্তভোগী পদ্ম চিৎকার শুরু করলে আহত অবস্থায় স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে পলাশবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। পরে সেখানে তার অবস্থার অবনতি হলে মঙ্গলবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) সকালে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করা হয়।

পলাশবাড়ী থানা পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) শহিদুল ইসলাম জানান, তৃতীয় লিঙ্গের ভোলা নামে একজন এ ঘটনা ঘটিয়েছেন। তবে এ ঘটনার পরপরই বাড়ি থেকে পালিয়ে গেছেন তিনি। আহত পদ্ম দাশকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত ভুক্তভোগীর পরিবারের পক্ষে কেউ থানায় অভিযোগ করেনি।

আরও পড়ুন