বৃহস্পতিবার, ১৮ অগাস্ট ২০২২, ০২:৪৭ অপরাহ্ন

প্রতিবছরই ভারতের আসামে বন্যা হয়। তবে এবার বন্যার ভয়াবহতা তুলনামূলক বেশি। বন্যায় ইতোমধ্যে ১২২ জনের প্রাণহানি হয়েছে। পানিবন্দি প্রায় ২২ লাখ মানুষ। বাড়ি-ঘর, চাষের জমি সব ভেসে গিয়েছে। এই পরিস্থিতিতে দেখা গেল এক মর্মান্তিক ছবি। বন্যার পানি থই থই করছে হাসপাতাল। যান চলাচলের রাস্তাও ডুবে গিয়েছে বন্যার পানিতে। এই অবস্থায় রাস্তার এক কোণে উঁচু জায়গায় চলছে ক্যানসার রোগীদের কেমোথেরাপি! খবর আনন্দবাজার পত্রিকার।

খবরে বলা হয়, শিলচরের কাছার ক্যানসার হাসপাতাল পানিতে টয়টম্পুর। পানি ঢুকে পড়েছে প্রতিটি রুমে। এই অবস্থায় রোগীদের সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে খোলা আকাশের নীচে। সেখানেই চলছে ক্যানসার আক্রান্তদের চিকিৎসা।

প্রতিবেদনে বলা হয়, ১৫০ শয্যাবিশিষ্ট ‘কাছার ক্যানসার হাসপাতাল অ্যান্ড রিসার্চ সেন্টার’ গত কয়েক দিন ধরেই পানিতে নিমজ্জিত। অবস্থা এমন হয়েছে যে, রোগী এবং হাসপাতাল কর্মীদের লাইফ জ্যাকেট পরিয়েছেন হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। তার মধ্যে চালু রয়েছে রোগী পরিষেবা। বন্যায় এমনই ভয়াবহ পরিস্থিতি হয়েছে বরাক উপত্যকা সংলগ্ন ওই এলাকার।

এক চিকিৎসক জানান, কেমোথেরাপিসহ দরকারি ডাক্তারি পরীক্ষা এবং চিকিৎসা তারা রাস্তার ওপরেই করছেন। যেখানে পানি একটু কম সেখানেই শয্যা পেতে চলছে রোগীর চিকিৎসা।

আরও পড়ুন