বৃহস্পতিবার, ১৮ অগাস্ট ২০২২, ০২:৪৫ অপরাহ্ন

খুলনার ডুমুরিয়ায় পর’কীয়া প্রেমের জেরে দ্বিতীয়বার বিয়ের পিঁড়িতে বসলেন ইউপি সদস্য অ’মিতেষ ওরফে মিলন বালা। ৪ বছর প’রকীয়া প্রেমের জেরে বিয়ের দাবিতে এক সন্তানের জননী প্রেমিকা সুধা মণ্ডল ইউপি সদস্য’র বাড়িতে ধর্ণা দিয়ে অবশেষে মধ্যরাতে বিয়ের পিড়িতে বসে এক ফ্রেমে আবদ্ধ হন। ঘটনাটি ঘটেছে বুধবার (২৮ জুন) রাতে উপজেলার কৃষ্ণনগর গ্রামের।

এলাকাবাসী জানায়, ডুমুরিয়া উপজেলার রঘুনাথপুর ইউনিয়নের কৃষ্ণনগর গ্রামের বাসিন্দা অমিতেষ ওরফে মিলন বালা। এক কন্যা সন্তানের বাবা তিনি। তিনি রঘুনাথপুর ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ড সদস্য। একই গ্রামের কৃষ্ণপদ মণ্ডলের এক সন্তানের জননী সুধা মণ্ডলের সাথে অমিতেষ পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়েন। প্রেমিকা সুধা মণ্ডলের স্বামী চার বছর আগে মারা যান। একপর্যায়ে দৈ’হিক সম্পর্কে পরিণত হয় তাদের পর’কীয়া। সুধা মণ্ডল এ পরিস্থিতিতে মিলন বালাকে বিয়ের চাপ দিতে থাকলে মিলন বালা নানা অযুহাত দিতে থাকেন। যার প্রক্ষিতে বুধবার বিকেলে সুধা মণ্ডল বিয়ের দাবিতে প্রেমিক মিলন মণ্ডলের বাড়ি এসে অবস্থান নেন।

১৪ বছর আগে মিলন বালা যশোর জেলার মনিরামপুর উপজেলার এনায়েতপুর গ্রামে বিয়ে করেন। তাদের সংসারে ১১ বছর বয়সী একটি কন্যা সন্তান রয়েছে।

স্থানীয় সংরক্ষিত মহিলা সদস্য আরতি মহাজন জানান, মিলনের স্ত্রী দীর্ঘদিন এখানে থাকেন না। বুধবার সুধাকে মিলন বাড়িতে আসতে বলে। তাদের সম্পর্কের জের ধরে শান্তিপূর্ণভাবে রাতে বিয়ে দেয়া হয়েছে। পরিবারের সবাই মেনে নিয়েছেন।

আরও পড়ুন