শুক্রবার, ১২ অগাস্ট ২০২২, ০২:১৭ পূর্বাহ্ন

পুলিশ কর্মকর্তা পরিচয় দিয়ে নিয়মিত প্র’তারণা করে চলেছে এক ব্যক্তি। শুধু তাই নয়, সে যে পুলিশের এসপি সেটা বিভিন্ন এলাকায় প্রচার করে বেড়ানোর জন্য বেতন দিয়ে কর্মচারী রেখেছে। আসামি ছাড়িয়ে নেয়া, চাকরি দেয়ার নামে প্র’তারণা করে আত্মসাৎ করেছে কোটি টাকা।

লোকটির নাম গালিব চৌধুরী। গালিব ও তার দুই সহযোগীকে গ্রে’ফতার করেছে ঢাকার ডিবি পুলিশের সাইবার ক্রাইম টিম।

গ্রেফ’তারকৃত গালিব নিজেকে এআইজি বা এসপি সাইফুল পরিচয় দিতেন। একসময় কাজ করতের পুলিশের সোর্স হিসেবে। সেই থেকে রপ্ত করেন পুলিশি ভাষা। শুরু করেন প্রতারণা।

পুলিশ সদরদফতরের সিনিয়র অফিসার বা ২৪তম বিসিএস পুলিশ ব্যাচের এসপি পরিচয় দিয়ে আসামি ছাড়িয়ে আনা, মামলা তুলে নেয়া, চাকরির প্রলোভন, কর্মকর্তা-সদস্যদের পদোন্নতি বদলির নামে বিভিন্ন মাধ্যমে কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন। এর বেশিরভাগ এসেছে মোবাইল ব্যাকিংয়ে। তার দু’টি নাম্বারের বিকাশ অ্যাকাউন্টে গত ৬ মাসে ৩৫ লাখ টাকা এসেছে। একটি নগদ অ্যাকাউন্টে জমা হয়েছে প্রায় ১৩ লাখ টাকা। রাজধানীর বিভিন্ন থানায় এ নিয়ে মা’মলাও করেছেন ভুক্তভোগীরা।

শুধু তাই নয়, গালিবের গ্রাম গোপালগঞ্জের সদর থানা এলাকায়। সে যে একজন এসপি এটা প্র’চারণা চালানোর জন্য টাকা দিয়ে লোক রেখেছেন। প্রতিমাসে তাদের ১০ হাজার টাকা দিতেন। তার ফাঁ’দে পড়েছেন অসংখ্যা মানুষ এমনকি পুলিশের বিভিন্ন স্তরের সদস্যরা।

গোয়েন্দা পুলিশের তালিক অনুযায়ী, গালিব চক্রটি ৮ ধরনের প্র’তারণা করতো। তার আরও অ’পক’র্ম ও সম্পদের খোঁজে এখন পুলিশ।

আরও পড়ুন