রবিবার, ১৪ অগাস্ট ২০২২, ১১:১৩ অপরাহ্ন

শ্রীলঙ্কার পার্লামেন্টের স্পিকার জানিয়েছেন, দেশটির প্রধানমন্ত্রী রনিল বিক্রমাসিংহকে ভারপ্রাপ্ত প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব দিয়ে গেছেন গোতাবায়া রাজাপাকসে। আজ বুধবার (১২ জুলাই) দেশটিতে জরুরি অবস্থা জারির পর পরই এমন সিদ্ধান্ত এল।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির খবরে বলা হয়েছে, সংবিধান অনুসারেই প্রেসিডেন্টের অনুপস্থিতিতে ভারপ্রাপ্ত প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পেয়েছেন রনিল বিক্রমাসিংহে। এর আগে প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া রাজাপক্ষের পক্ষ থেকে প্রধানমন্ত্রীর দপ্তরকে আনুষ্ঠানিকভাবে জানানো হয়েছিল যে, তিনি বুধবারই পদত্যাগ করছেন। যদিও গোতাবায়া নিজে এ ধরনের বক্তব্য সরাসরি দেননি বা জাতির উদ্দেশে জানাননি।

এর আগে মঙ্গলবার (১২ জুলাই) দিবাগত রাতে একটি সামরিক বিমানে শ্রীলঙ্কার প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া রাজাপাকসে মালদ্বীপ পালিয়ে যান বলে জানান দেশটির অভিবাসন কর্মকর্তারা।

বার্তাসংস্থা এএফপি জানিয়েছে, ৭৩ বছর বয়সী গোতাবায়া, তার স্ত্রী ও এক দেহরক্ষীসহ চার যাত্রী নিয়ে সামরিক বিমান অ্যান্তোনভ–৩২ মঙ্গলবার মধ্যরাতে বন্দরনায়েক আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে মালদ্বীপের উদ্দেশে যাত্রা করে। মূলত শ্রীলঙ্কার কোনো আইনেই ক্ষমতাসীন প্রেসিডেন্টকে গ্রেপ্তারের বিধান নেই। তবে পদত্যাগের পর গ্রেপ্তার হওয়ার হাত থেকে বাঁচতে প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া বিদেশে পালিয়ে গেছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।

এদিকে শ্রীলঙ্কাজুড়ে জরুরি অবস্থা জারি করেছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী রনিল বিক্রমাসিংহে। প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া রাজাপাকসে দেশ ছেড়ে পালানোর কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই জরুরি অবস্থা জারির ঘোষণা দিলেন তিনি। এছাড়া শ্রীলঙ্কান একটি প্রদেশে কারফিউও জারি করা হয়েছে।

আরও পড়ুন