শুক্রবার, ১৯ অগাস্ট ২০২২, ০৪:৪৯ পূর্বাহ্ন

একাধিক ব্যক্তির সঙ্গে প’রকী’য়ায় আ’সক্ত ছিলেন স্ত্রী। সবকিছু জেনেও স্ত্রীকে সেই পথ থেকে সরে আসতে বলেছিলেন স্বামী। কিন্তু স্ত্রী সরে আসেননি। ফলে অভিমানে স্ত্রীর দুই প্রেমিকের ছবি গলা’য় ঝুলিয়ে আ’ত্মহ’ত্যা করেছেন স্বামী! ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের মুর্শিদাবাদে। খবর- ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এই সময়ের।

খবরে বলা হয়, নি’হত যুবকের নাম সেলিম শেখ। প্রতিবেশীদের দাবি, দশ বছরের দাম্পত্য জীবন সেলিম এবং আমিনার। কিন্তু স্ত্রী একাধিক ব্যক্তির সঙ্গে সম্পর্ক রেখেছিলেন বলে দাবি করেছিলেন সেলিম। বার বার স্ত্রীকে অনুরোধ করেছিলেন বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কগুলি থেকে বেরিয়ে আসতে। কিন্তু সেকথা শোনেননি আমিনা। এরপরেই স্ত্রীর দুই প্রেমিকের ছবি গলায় ঝু’লিয়ে আ’ত্মঘা’তী হয়েছেন তিনি। এ ঘটনার তদন্তে নেমে নিহ’তের স্ত্রীকে আটক করেছে পুলিশ।

গ্রামবাসীদের দাবি, সম্প্রতি রাজেশ শেখ ও হাকির শেখ নামে দুই যুবকের সঙ্গে আমিনার বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্ক গড়ে ওঠে। বুধবার আমবাগান থেকে উদ্ধার হয় সেলিম শেখের মরদেহ। গ’য় ঝুলানো ছিল স্ত্রীর প্রেমিক হিসেবে সন্দেহ করা জাকির এবং রাজেশের ছবি।

সেলিমের ভাই বাচ্চু শেখ বলেন, সেলিম এবং আমিনার ১০ বছরের সংসার। তাদের একটি নয় বছরের পুত্র সন্তান রয়েছে। কিন্তু গত পাঁচ বছর ধরে বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ে আমিনা। তাকে বারবার সচেতন করে সেলিম। যদিও সেই কথা কানে নেননি আমেনা। তবে সেলিমের এক আত্মীয় বাদল শেখ বলেন, সেলিমকে হ’ত্যা করা হয়েছে। তদন্তে মোড় ঘোরানোর জন্যই ওই দুই ব্যক্তির ছবি গলায় ঝোলানো হয়েছে।

এদিকে, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে আমিনাকে। ঠিক কী কারণে সেলিমের মৃ’ত্যু হয়েছে ময়নাতদন্তের রিপোর্ট আসলেই জানা যাবে বলে জানিয়েছে পুলিশ। আমিনাকে জিজ্ঞাসাবাদ করছে পুলিশ।

আরও পড়ুন