বৃহস্পতিবার, ১৮ অগাস্ট ২০২২, ১০:৩৯ অপরাহ্ন

বিশ্বের ধনকুবের যে টাকা আয় করে তার বড় অংশই খরচ করেন বিলাসিতা এবং অদ্ভুত শখের পেছনে। এমন একজন ধনকুবের পাকিস্তানী বংশোদ্ভুত ব্যবসায়ী মোহাম্মদ জহুর। সাবেক এক বিশ্ব সুন্দরীকে বিয়ে করেছেন তিনি। যার প্রতিবার গোসল করতে খরচ হয় লাখ টাকার বেশি।

শুধু তাই নয় স্ত্রীর পপ গায়িকা হওয়ার শখ। সেজন্য কয়েক কোটি টাকা খরচ করেছেন ধনকুবের বর। পাকিস্তানের জন্ম নেয়া এই ধনকুবের একজন ব্রিটিশ ব্যবসায়ী। তার স্ত্রীর নাম নাতালিয়া। যিনি জন্ম সূত্রে ইউক্রেনের অধিবাসী। ২০০৩ সালে বিয়ে হয় তাদের। বিয়ের পর নাম রেখেছেন কামালিয়া জহুর।

সাবেক এই বিশ্বসুন্দরী পেশায় একজন মডেল এবং গায়িকা। সাধারণ পরিবারে জন্ম হলেও বিয়ের পর শুরু করেন বিলাসবহুল জীবন। মোহাম্মাদ জহুর এবং তার স্ত্রী কামালিয়া থাকেন ১০ টি বেডরুমের বিশাল এক বাংলোতে। তাদের সেবার জন্য রয়েছে ২২ জন কর্মী। শুধুমাত্র এদের বেতন দিতে প্রতি বছর তাদের খরচ হয় প্রায় দুই কোটি টাকা।

মডেল কামালিয়া জহুরের লাইফস্টাইল অত্যন্ত ব্যয়বহুল। প্রতিবছর প্রায় ৫০ লাখ টাকার বেশি শপিং করেন তিনি। কামালীয়ার প্রিয় একটি ঘড়ি রয়েছে, যেটি প্রায়ই ব্যবহার করেন। এই ঘরে বাজার মূল্য ৪০ লাখ টাকার বেশি। এছাড়া সাবেক এই মিস ওয়ার্ল্ড যে চশমা ব্যবহার করেন সেটের দাম চার লাখ টাকা।

শুধুমাত্র সাধারন বিলাসিতায় এই ধ্বনি সুন্দরী। এর বাহিরে আশ্চর্য এক অভ্যাস রয়েছে তার। প্রতি মাসে গোসল করার জন্য তার খরচ করতে হয় লাখ টাকা। সাধারণত পানি দিয়ে গোসল করে থাকে সবাই। তবে পানি পছন্দ করেন না কামালিয়া। তিনি গোসলের জন্য ব্যবহার করেন শ্যাম্পেইন। তার একবার গোসলের জন্য প্রয়োজন হয় শ্যাম্পেইন ২০ থেকে ৩০ টি বোতল।

যেগুলোর প্রতিটির দাম পড়ে পাঁচ হাজার টাকা করে। কামালিয়া জহুর নিজের সৌন্দর্য দিয়ে বিশ্ব জয় করে থাকলেও তার আসল শখ ছিল গায়িকা হবার। টেইলর সুইফটের মতো বিশ্ব বিখ্যাত পপস্টার হবার স্বপ্ন দেখতেন তিনি। তার এই স্বপ্ন পূরণের জন্য সর্বোচ্চ খরচ করেছেন ধনকুবের স্বামী মোহাম্মাদ জহুর।

স্ত্রীকে পপস্টার বানাতে গিয়ে ২১ মিলিয়ন ইউরো বিনিয়োগ করেছেন তিনি। এছাড়া ইউক্রেনে একটি মিউজিক অ্যাওয়ার্ড চালু হয়েছিল তার অধ্যয়নে। অবশ্য স্বামীর এতো বিনিয়োগের পরও স্বপ্ন পূরণ হয়নি কামালিয়ার। দেশে জনপ্রিয়তা পেলেও আন্তর্জাতিক অঙ্গনে খুব একটা সুবিধা করতে পারেননি তিনি।

গানের বাইরে অভিনয়েও আগ্রহী ছিলেন কামালিয়া। নিজের দেশের কিছু চলচ্চিত্রে অভিনয়ও করেছেন তিনি। একসময় হলিউডে যুক্ত হবার চেষ্টাও করেছিলেন। কিন্তু এই স্বপ্ন পূরণ হয়নি। তবে নিজের দেশে তার প্রভাব অনেক।

বিলিয়নিয়ার মোহাম্মদ জহুর পাকিস্তানের জন্ম নিলেও এই দেশে বসবাস করছেন দীর্ঘদিন। স্ত্রীর দেশের প্রতি আন্তরিকতা রয়েছে তার। চলমান যুদ্ধের শুরুতে গোপনে দুইটি যুদ্ধবিমান কিনে দিয়ে ইউক্রেনকে সহায়তা করেছেন তিনি। বিশ্বের প্রভাবশালী বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশ করেছে এই খবর। আলোচিত এই দম্পতি বিভিন্ন দানশীলতা এবং সমাজ সেবা করে থাকে নিয়মিত।

আরও পড়ুন