মঙ্গলবার, ১৬ অগাস্ট ২০২২, ০৬:৪৭ পূর্বাহ্ন

পদ্মা সেতু ব্যবহার করে অল্প সময়েই পৌঁছানো যাবে ঢাকাসহ বিভিন্ন স্থানে, অর্থ-সময় উভয়ই সাশ্রয় হবে এমনটাই আশা ছিল চুয়াডাঙ্গাবাসীর। তবে যাতায়াতের সুবিধা না থাকায় বঞ্চিত হচ্ছেন যাত্রীরা। বাস মালিকদের অভিযোগ, রুট পারমিট জটিলতায় পদ্মা সেতু ব্যবহার করতে পারছেন না তারা। আবেদনের প্রেক্ষিতে সড়কে রুট পারমিট দেয়ার আশ্বাস দিয়েছে বিআরটিএ কর্তৃপক্ষ।

যাত্রীবাহী পরিবহন সংশ্লিষ্টরা বলছেন, রুট পারমিট জটিলতায় থমকে আছে পদ্মা সেতু ব্যবহারের সুবিধা। ফলে ভোগান্তি আর দুর্ভোগকে সঙ্গী করে আগের মতোই দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুট ব্যবহার করতে হচ্ছে তাদের। পদ্মা হয়ে ঢাকা যাওয়ার নতুন রুটের পারমিট পাওয়া গেলে সড়কে আরও যাত্রীবাহী বাস নামানোর পরিকল্পনা রয়েছে মালিকদের। তাই দ্রুত পদ্মা সেতু ব্যবহারে সকল জটিলতার অবসান চান তারা।

এ নিয়ে জেলা সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মইনুউদ্দিন মুক্তা বলেন, সহজে যদি আমাদের রুট পারমিট দিয়ে দেয়া হয় তাহলে চুয়াডাঙ্গা ও মেহেরপুরবাসী অনেক উপকৃত হবে। তারা স্বচ্ছন্দে পদ্মা সেতু হয়ে যাতায়াত করতে পারবে।

এদিকে, স্থানীয় বিআরটিএ বলছে, আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে নিয়ম অনুযায়ী পরিবহন চলাচলে অনুমতি দেয়া হবে। চুয়াডাঙ্গার বিআরটিএ সহকারী পরিচালক সৈয়দ আইনুল হুদা চৌধুরী বলছেন, তারা যদি আগের রুট পারমিটটি সারেন্ডার করে নতুনভাবে আবেদন করে, তাহলে পদ্মা সেতু দিয়ে চলাচলে কোনো বাধা থাকবে না।

তবে জটিলতা না থাকায় সহজেই পদ্মা পাড়ি দিচ্ছে পণ্য বহনকারী যানবাহন। ফলে চুয়াডাঙ্গার সাথে পণ্য আমদানী-রফতানি বাণিজ্যিক সম্পর্ক দৃঢ় হচ্ছে। সুবিধা পাচ্ছে ব্যবসায়ীরা।

আরও পড়ুন